একটি বোকাতম প্রাচীন কাব্য (জীবনানন্দের প্রতি-২)

একটা পুরো জীবন পেলাম
তোমাকে নির্বিবাদে ভাববার জন্য,
ঈশ্বরকে ধন্যবাদ
এখন থেকে আজীবন শুধু গাইতে পারবো তোমার নাম
তোমাতে বাস করতে পারবো সকাল বিকাল রাত,
আনমনা ও বোকা থাকার
কারণ খোজার দায় থেকে
মুক্তি দিলাম কিছু মানুষকে নির্মমভাবে।

মুক্তি দেবার মত স্বাধীনতা পেতে
বহু কাঠখড় পোহাতে পেরেছি
কিছু চোখের জল, কিছু ঘৃণা ও ক্ষোভানলে অর্ধ দগ্ধ হয়েছি
কিছু অনাকাঙ্ক্ষিত ঝড় ওঠার পূর্ব দায় নিয়েছি আজীবন।
আর আকন্ঠ অপ্রেম ও উপেক্ষার
ঔদ্ধত্য শীতলতায় রোপণ করতে পেরেছি
কঠোরতার চাদরে মুড়ে।

হৃদয়,
অদ্ভূত বোকা যন্ত্র এক।
আধুনিক যুগে ‘সাবমিশন’ যেখানে পাপ
সেখানে বিকিয়ে গেছে অজানা কারণে,
জন্মান্তর বুঝিনা, বিচ্ছেদ বুঝিনা
বোঝাবুঝির দায় থেকে মুক্ত তুমিও।

বরং চল চোখ বন্ধ করি
আনত হই কিছুক্ষণ
অঞ্জলি নাও আজীবন
আর জেনে নাও
এ জনম শুধু তোমাকেই ভাবব
সব অবাক চাওয়া
সব সোৎসাহ, স্পৃহা আর তৃষ্ণা
আবিষ্কারের নেশা এবং সব
দুদ্দাড় আকাঙ্ক্ষা
তোমাকেই দিলাম
তোমাকেই দিলাম
তোমাকেই দিলাম।

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন:

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Follow

Get the latest posts delivered to your mailbox:

Free SSL