ঐশির নয়, ঐশির বাবা-মাদের নিয়মতান্ত্রিক শাস্তি চাই

গত দুদিন ঐশীর খবরটার শিরোনাম দেখলেই মন খারাপ হত। আজ তবু পড়লাম। পড়ে মনে হল বিচার হওয়া উচিত ছিল আসলে এর বাবা-মারই। ঐশী যে নাচের ক্লাব ও পার্টিগুলোতে যেত, যে শ্রেণীর পোলাপানের সাথে মিশত তাতে নিশ্চিতভাবে বলা যায় তার পুলিশ বাবা তার পিছনে প্রতি মাসে ৩০-৫০ হাজার বা ১ লাখ টাকা ঢালত। কথা হল একজন সরকারী কর্মকর্তার এত টাকা কোথা থেকে আসে? দ্বিতীয়ত একটি ১৬-১৭ বছরের ছেলে বা মেয়েকে এই পরিমাণ হাত খরচ কোন আক্কেলে দিতে হবে? এত টাকা হাতে পেয়ে সে কী ল্যাবেঞ্চুস খাবে? তৃতীয়ত এই কিশোরীটি কাদের সাথে মিশছে, কিভাবে গোল্লায় যাচ্ছে সে খবর না নিয়ে বা তার সুসমাধান না করে সারাক্ষণ নিষেধের বেড়াজালে আটকে রেখে ক্রেজি করে তুলেছে ওর বাবা মা। যদিও এটা আমাদের দেশের পোলাপান বড় করার মেইনস্ট্রিম কালচার। আর ইংলিশ মিডিয়াম এবং প্রাইভেট ইউনিভার্সিটির অবদান তো জাতি দেখতেই পাচ্ছে। জঙ্গি সংগঠন এর সূতিকাগার, মাদক কেন্দ্র আর খুনিদের কারখানায় পরিনত হচ্ছে প্রতিটি প্রতিষ্ঠান । মুক্ত প্রকৃতির ক্যাম্পাস, স্কুলের সামনের খোলা মাঠ, মাতৃভাষার মাধ্যমে শেখা, সর্বোপরি শিক্ষার্থীদের স্লিম মানিব্যাগের অবদান পরিবার, সমাজ ও দেশের জন্য অপরিসীম। এ দেশের সকল ঐশীর বাবা-মারা তা কবে বুঝবেন?

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন:

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Follow

Get the latest posts delivered to your mailbox:

Free SSL