স্বপ্ন

জানি না সামাজিকতা
বুঝি না পার্থিব আচার-বিচার
শুনি না বিষয়ী ভাষা
বলি না আমাকে দেখ,
এই আমি ।

এখানে

এখানে
ফুল ফোটে
বুকে কাঁটা নিয়ে,
এখানে
আবেগ আসে
মনে ব্যথা নিয়ে।

এখানে,
এই মরুর দেশে
কেউ কাউকে ভালবাসে না,
খুলে রাখে সবাই আকাঙ্ক্ষার খাঁচা।
ভালবাসা মানে এখানে শুধু ধুধু বালি
গড়ে তোলে কীটেদের শরীর।

তুমি

তুমি ফুল হতে পারো না
কারণ পৃথিবীর সব ফুল কীট-দংশিত।
তুমি চাঁদ হতে পারো না
কারণ পৃথিবীর সব কবির লোলুপ চোখে সে দর্শিত।

এইসব মুহুর্ত

বাতাস এসে বুকের ঠিক মাঝখানটাতে
থমকে দাঁড়ায়,
মর্মাহত এক রোদ্দুর এসে জানান দেয়
যাবার বেলা হল।
নদীর ওপারে একলা মেঘ ডেকে যায়
ঠিক তার পাশে,
মরণের কাছে।

সহজ চাওয়া

একটু যদি সহজ হও,কী ক্ষতি হয়!
নীল যদি বেগুনী হয়,
একটু সময়,
কী ক্ষতি হয়!
একটু যদি সহজ হাস
একটু যদি সহজ বল
কী ক্ষতি হয়!

নিঃসঙ্গ গ্রহচারী

আজ নিসংগতার শুভযাত্রা শুরু হল
দুপুরবেলায় আঁধারের পোকারা হেঁটে হেঁটে মাথায় এসেছে
আর গান গাইছে‒ আমি একা, আমি একা আ….।
আমি শুধু শুনি
আর তাদের ছড়ানো বরফকুচিতে
উষ্ণতা খোঁজার আশায় বুক বাঁধি।

জুতার বাড়ি

আমাদের এলাকায় একটা চৌরাস্তার মোড় আছে। তার তিন দিকের রাস্তার পাশেই আছে তিনটি দেয়াল। মজার ব্যাপার হল-

Follow

Get the latest posts delivered to your mailbox:

Free SSL