জুতার বাড়ি

আমাদের এলাকায় একটা চৌরাস্তার মোড় আছে। তার তিন দিকের রাস্তার পাশেই আছে তিনটি দেয়াল। মজার ব্যাপার হল-

দুইটি দেয়ালে লেখা ”এখানে প্রসাব করিলে ১০০ টাকা জরিমানা”
বাকি একপাশে লেখা ”এখানে প্রসাব করিলে ১০ জুতার বাড়ি”।

আশ্চর্যের বিষয় হল যে পাশে ১০০ টাকার কথা লেখা সে পাশ খুবই নোংরা, মানে সেখানে নিয়ম ভাংগা হয় প্রতি মুহূর্তে। আর যে পাশে জুতার বাড়ির কথা লেখা আছে সে পাশ খুবই পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন। তার মানে সেখানে নিয়ম ভাংগার জন্য কেউ যায়না।

আমাদের বাংগালীর চরীত্রে সবসময়ই একটা নিয়ম ভাংগার প্রবণতা কাজ করে। তা সে ভাল নিয়মই হোক আর খারাপ নিয়মই হোক। তবে এই জুতার বাড়ির ব্যাপারটাকে চাইলেই কেউ ইতিবাচকভাবে নিতে পারে। এই ব্যাপারটা প্রমাণ করে যে বাংগালীর কাছে টাকার চাইতে মান-সম্মানের দাম বেশী। তাই আমার মনে হয় এখন থেকে আর জরিমানা না করে জুতার বাড়ি ধার্য করা উচিত। যেমন-

১। “ধূমপান করলে ৫০ জুতার বাড়ি।”

২। “এখানে কার পার্কিং নিষেধ,করলে ৫০০জুতার বাড়ি”

৩। “দেয়ালে পোস্টার লাগালে ১০০জুতার বাড়ি”

এভাবে টাকার পরিবর্তে জুতার বাড়ি প্রচলন আজ থেকেই শুরু হোক। কী বলেন?

প্রথম প্রকাশঃ ২৫ শে অক্টোবর, ২০০৯ বিকাল ৫:৪৯।

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন:

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Follow

Get the latest posts delivered to your mailbox:

Free SSL