আমিই স্তম্ভিত বিশ্বজিৎ

ঘুম আসছেনা
শহুরে সিসার বিবমিষা জড়ানো মগজ নিয়ে
ক্লান্তিতে নুয়ে আছে আমার শ্রমিক শরীর,
তবু ঘুম নেই।

যদিও
সোশ্যাল মিডিয়ায় যে আ্যলবামটি সবার টাইমলাইন আর হোমপেজে ঘুড়ছে তার প্রোটাগনিস্ট
আমি নই,
ছয়টি হায়না আক্রান্ত রক্তাক্ত যে শরীরটি দৌড়াচ্ছে ঊর্ধ্বশ্বাসে
সে ও আমি নই,
হিংস্র জানোয়ারগুলোর হাতে রড ছিল
মানবাকৃতির সে নরপশুদের চেহারায়
নারকীয় উন্মত্ততা ছিল
বর্বর পিশাচগুলোর হাত থেকে মুক্তির জন্য
আঘাতে আঘাতে বিদ্ধস্ত স্বন্ত্রস্ত যে যুবা
বাচতে চেয়ে ছুটে যাচ্ছে মানুষের কাছে
সে ও আমি নই,

আমি খুব সাধারণ কর্মক্লান্ত শান্ত-শান্তি চাওয়া শ্রমিক,
যে ঘুমাতে না পেরে আজ তারুণ্যের অসহ্য অক্ষমতায় কেদে ফেলছি কেবলই
বিপর্যস্ত হয়ে রাজপথের অলিতে গলিতে
বিচারের দাবিতে, অধিকারের দাবিতে
ছুটে চলছি কল্পনায় এ প্রান্ত থেকে ও প্রান্ত।
ঐ সাধারণ টিফিন হাতে পথ চলা ছেলেটি
কেমন করে হায়নাদের নখের কবলে পড়ে গেল
ভেবে আমার বমি এলো হঠাৎ,
আমি ঘুমাতে পারছিনা।

আজ সংসদ, রাজপথ কোথায়!
কোথায় সব বিদ্রোহের কবিতার খাতা!
কিংবা বিপ্লবের স্ফুলিংগ ওঠা দাবানল বন!
আমি এখানেই আছি স্তম্ভিত, পুঞ্জিভূত ক্ষোভানলে জ্বলে,
আমার হোমপেজে কোন হাস্যোজ্জল ছবি আমি দেখিনা আর
পড়িনা কোনো কবিতা আর
আমি ঘুমাইনি, ঘুমাইনা
শুধু রক্তাক্ত বিহবল বিশ্বজিতের মুখ বুকে নিয়ে শুয়ে আছি,
কিংবা অপেক্ষা করছি।

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন:

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Follow

Get the latest posts delivered to your mailbox:

Free SSL