ছবির হাট বন্ধ ও আমাদের শিল্পচর্চার দীনতা

এখনো জানি না ছবির হাট ভেঙে দেবার আসল কারণ কী। তবু বুঝতে পারছি কিছু অনৈতিক কর্মকাণ্ড, কিছু বিশৃঙ্খলা বন্ধ করার জন্য সরকার এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কিন্তু এটা মাথা ব্যথার কারণে মাথা কেটে ফেলার তত্ত্ব নয় কী? শিল্প কর্মগুলো কী দোষ করেছিল? দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় জার্মানরা ফ্রান্সের কয়েকটি শহরকে আক্রমনের বাইরে রেখেছিল, কারণ সেগুলো শিল্প সংস্কৃতির আধার ছিল বলে। আর আমাদের দেশের সরকার ছবির হাটের কয়েকটি শিল্প কর্মকে বুক দিয়ে আগলে রাখার প্রয়োজন বোধ করল না। এই নিম্নরুচির অশিক্ষিত গোড়া আর অসহিষ্ণু প্রয়োজনবোধের আমদানী প্রশাসনযন্ত্রে কী করে ভর করল তা কারো অজানা নয়। শফি হুজুর আর ক্ষমতার দম্ভ মস্তিস্কে ভর করলে এ-ই হয়। শিল্পের প্রতি ভালবাসা ও শ্রদ্ধার অভাব ঘটলে, পরমত সহ্য করতে না পারলে তাদের আখড়া হোক আর ঘাঁটি হোক সেটা তো ভাঙতেই হবে। গাঁজাখোর আর হিরোইঞ্চিদের কীভাবে শায়েস্তা করতে হয় সেটা প্রশাসনের ঠিকই জানা আছে। অথচ সরকারের ভণ্ডামির মূল্য দিতে হবে সৃজনশীল মানুষগুলোকেই। কিছু একটা করতে হবে, করতেই হবে…

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন:

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Follow

Get the latest posts delivered to your mailbox:

Free SSL