বিভাগ: ফানপোস্ট

শীতে যেভাবে গরম অনুভব করি

ঘুম হইতেই উঠিয়া ঘড়িতে আটটা বাজিতে দেখা একটি সাধারণ ঘটনায় পরিণত হইয়াছে। উহা আপিস দিবস হউক না হউক। ত্রস্ত-ব্যস্ত হইয়া দাঁত ক’পাটি মাজিবার উদ্দেশ্যে ব্রাশে পেস্ট লাগাইয়া ট্যাপের নিচে ধরিলে আঙ্গুলগুলি বরফের ন্যায় ঠাণ্ডা জল দ্বারা ভিজিয়া উঠা মাত্র আপাদমস্তক কাঁপিয়া উঠিতে হয়। ইহাকে বলে ভগবানের প্রথম ঝটকা।

যেভাবে আর্জেন্টিনার সমর্থকদের হৃদরোগ থেকে বাঁচাবেন

ভাইরে ভাই, আর্জেন্টিনা নাকি এবার বিশ্বকাপেই খেলতে পারবেনা। কিছু হইলো এইটা? নিজের জন্মে আর্জেন্টিনার এত দুরবস্থা দেখি নাই। রাত জাইগা খেলা দেখি না বইলা কেউ আবার ভাইবেন না ফুটবল দুনিয়ার খোজ লই না। কিংবদন্তি, দুনিয়ার বাইরের প্রতিভা হেন তেন যদি দেশের কাজেই না লাগে তাইলে আর লাভ কী তাগো খেলা দেইখা। ভাইরে ভাই, খেলোয়াড় তো না যেন হলিউডের নায়ক। ক্লাবে খেইলা এত টাকা কামাইতাছে যে সেই টাকা টয়লেটে টিস্যু হিসেবে ব্যাবহার করা সম্ভব। কিন্ত দেশের কাজে না লাগলে আর কী করা! খেলার দোকান বন্ধ করাই ভালো না?

ছাগু,শুকর এবং বাংলা একাডেমি সমাচার

এই বঙ্গদেশে ‘বাংলা একাডেমী’ নামক একটি স্থান আছে। অত্র স্থানে প্রচুর ছাগু বৎস চরিয়া বেড়ায় মনের সুখে। যে বিষয়টি আমাকে অতিশয় পুলকিত করিল তাহা হইল তাহাদের রূপ এবং আচারণ অবিকল মানবের ন্যায় হইলেও তাহাদের মনন ছাগু বৎসের ন্যায়। আমার মন প্রথমে সন্দেহ প্রকাশ করিলেও তাহাদের কর্ম ও বচন গুণে সহজেই বুঝিয়া লইয়াছি, তাহা্রা মানব সন্তান নহে। আরো আশ্চর্যের বিষয়, এই অতি সুন্দর স্থাপত্যশৈলিমণ্ডিত স্থানটিতে কিছু শুকর বৎসের ও সংকুলান হইয়াছে। কী রূপে ইহা প্রমাণিত হইল বলিতেছি।

ঢাবি’র টয়লেট সমাচার

আমরা বাঙ্গালী সকল খুবই ইন্টেলেকচুয়াল জাতি। পৃথিবীর এমন কোন কুল-কিনারা ও সমস্যা নাই যাহা বাঙ্গালীর অসীম ক্ষমতাশালী মস্তিষ্ক হইতে উদ্ধার পায়। তবে আমি একটু মূর্খ আছি। জাতিগত বৈশিষ্ট্যের ব্যতিক্রম ঘটাইয়া আমি একখানি অতি ক্ষুদ্রকায় মস্তিস্ক লইয়া জন্মাইয়াছি। তাই আমার দৃষ্টি ও চিন্তার দৌড় বাঙ্গালীর জীবন যাপনের চৌহদ্দী পর্যন্ত সীমিত বেশিরভাগ সময়। আপাতত আমি আমার এবং আমার পড়শির ঘুমানো এবং পয়ঃনিষ্কাশনের স্থান ও এর পরিবেশজনিত সমস্যা লইয়া ভাবিতেছি।

সময় ১৯৯৫-২০১২ঃ আসুন কিছুক্ষন বাংলা ছি:নেমা দেখি

প্রথমেই একটা প্রশ্ন। মূলত আমাদের দেশে সিনেমা না ছি:নেমা তৈরি হয় বলুন তো? অবশ্যই ছি:নেমা B-) ।এই ছি:নেমাগুলোর সবগুলোরই কিছু কমন গল্প আছে,আছে কিছু কমন ক্যারেক্টারওকিছু কমন ডায়ালগ। B-) আজকে বলব শুধু কমন ডায়ালগগুলোর কথা।প্রায় সব ছিনেমাতেই এই ডায়ালগগুলো থাকবেই।

জুতার বাড়ি

আমাদের এলাকায় একটা চৌরাস্তার মোড় আছে। তার তিন দিকের রাস্তার পাশেই আছে তিনটি দেয়াল। মজার ব্যাপার হল-

Follow

Get the latest posts delivered to your mailbox:

Free SSL